All Public examination Results

‘আল্লাহ হাফেজ, ভালো থেকো দুনিয়ার মানুষেরা’








মোহাম্মদপুরে ফাহিম শাহরিয়ার নামের এক তরুণ ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে মোহাম্মদপুর থানা।

ফাহিম শাহরিয়ার রাজধানীর ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটি থেকে পড়াশোনা শেষ করে একটি হাউজিং কম্পানিতে চাকরি করতেন। ফাহিম থাকতেন মোহাম্মদপুর হাউজিং লিমিটেডের ৫ নম্বর রোডে।

মানসিকভাবে হতাশাগ্রস্ত ফাহিম সোমবার সন্ধ্যায় নিজঘরের সিলিং ফ্যানের সাথে ইন্টারনেটের তারের সাথে যুক্ত করে এরপর গলা পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন। পুলিশ ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে চিকিৎসকেরা তাকে মৃত ঘোষণা করে।

আরও দেখুনঃ

ফাহিম সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুক হ্যান্ডেলে আত্মহত্যার পূর্বমুহূর্তে লেখে, ‘আম্মু মারা যাওয়ার পর থেকে আমার দুনিয়াটা অনেক ছোট হয়ে গিয়েছিল। আমার ভবিষ্যৎ চাওয়া পাওয়া বলতে যা ছিলো আজ তাও আমাকে ছেড়ে চলে গেলো। স্বপ্ন দেখার মতো কিছু নেই।

আমার জন্য এতোদিন যিনি মিডিয়াতে নিজের প্রতিষ্ঠা করতে পারেন নি আজ থেকে তার পথের কাঁটা সরে গেলো দোয়া রইলো তার জন্য উনি যেন সুপারষ্টার হন তার সুনাম ছড়িয়ে প্রুক চারিদিকে এই কামনাই করি। যদি কখনো কাউকে কোন প্রকার কষ্ট দিয়ে থাকি তার জন্য সরি ক্ষমা করে দিবেন সবাই।

শেষ কথা হচ্ছে আমার জন্য কেউ যেন কাউকে দোষারোপ না করে আমি যা করেছি আমি আমার নিজের চিন্তা ভাবনায় করেছি। আল্লাহ হাফেজ, ভালো থেকো দুনিয়ার মানুষেরা।’

মোহা

ম্মদপুর থানার ডিউটি অফিসার সানাউল হক কালের কণ্ঠকে ফাহিমের আত্মহত্যার বিষয়টি নিশ্চিত কালের কণ্ঠকে নিশ্চিত করেন। তিনি ফাহিমের পিতার বরাত দিয়ে বলেন, ‘ফাহিম সম্প্রতি হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছিল। মানসিকভাবে ভেঙে পড়ার কারণে সে আত্মহত্যা করে।’

Loading...